মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২০ অক্টোবর ২০১৫

রপ্তানি অনুবিভাগ

        মুক্ত বাজার অর্থনীতির ক্রমবিকাশে বিশ্ববাণিজ্য ব্যবস্থায় প্রতিনিয়ত ব্যাপক পরিবর্তন ও পরিবর্ধন হচ্ছে। দ্রুত পরিবর্তনশীল ও প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ববাণিজ্য ব্যবস্থায় টিকে থাকার জন্য বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কর্মকান্ডকে গতিশীল ও বহিমূখী করে তোলা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের রপ্তানি অনুবিভাগ এর মুখ্য উদ্দেশ্য। ফলে রপ্তানি নীতি প্রণয়ন, বিদেশে বাণিজ্য প্রতিনিধি প্রেরণ, বিভিন্ন দেশের সঙ্গে বাণিজ্য চুক্তি সম্পাদন, আন্তর্জাতিক মেলায় অংশগ্রহণ, পণ্য বহুমুখীকরণ, রপ্তানিযোগ্য পণ্যের শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার প্রভৃতি লক্ষ্যে এ অনুবিভাগ থেকে বিভিন্ন বাস্তবধর্মী কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়ে থাকে।

 

 

রপ্তানি অনুবিভাগের কার্যাবলিঃ

  • প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ব বাণিজ্য ব্যবস্থায় বাংলাদেশের রপ্তানি প্রবৃদ্ধিকে সুসংহত ও টেকসই রাখা এবং রপ্তানি বাণিজ্য সম্প্রসারণের লক্ষ্যে রপ্তানি নীতি প্রণয়ন;
  • রপ্তানি বৃদ্ধির ধারাবাহিকতা রক্ষার স্বার্থে রপ্তানির লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারণ ও মনিটরিং;
  • বাণিজ্য সম্প্রসারণ এবং দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে সহযোগিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তি সম্পাদন;
  • পণ্য বহুমুখীকরণ ও বাজার সম্প্রসারণের লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় অংশগ্রহণসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাণিজ্য প্রতিনিধিদল প্রেরণ;
  • রপ্তানি বিষয়ে সামগ্রিক সহায়তা প্রদান ও বাণিজ্য সম্প্রসারণে বৈদেশিক বাণিজ্যিক উইং স্থাপন;
  • প্রতিযোগিতার মাধ্যমে রপ্তানি বাজারে গতিশীলতা আনয়নের লক্ষ্যে প্রতি বছর ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানকে সিআইপি কার্ড ও রপ্তানি ট্রফি প্রদান;
  • দেশের রপ্তানি বাণিজ্যকে উৎসাহিত ও প্রতিযোগি করার লক্ষ্যে কতিপয় নির্দিষ্ট পণ্যের ক্ষেত্রে রপ্তানি ভর্তুকি/নগদ সহায়তা প্রদান;
  • বাংলাদেশ চা বোর্ডের ব্যবস্থাপনায় চা শিল্পের উন্নয়ন ও সম্প্রসারণে নানাবিধ কার্যক্রম গ্রহণ;
  • দেশীয় পণ্যের মান উন্নয়ন এবং এর প্রতিযোগিতার সক্ষমতা তৈরীর লক্ষ্যে দেশের অভ্যন্তরে আন্তর্জাতিক মেলার আয়োজন;
  • রপ্তানি বাণিজ্য সম্প্রসারণ এবং বাণিজ্য ঘাটতি কমিয়ে আনার লক্ষ্যে বিভিন্ন দেশে শুল্ক ও কোটামুক্ত সুবিধা অর্জনে কার্যক্রম গ্রহণ।

Share with :
Facebook Facebook